Wednesday - 1 - April - 2020

নিজ চরকায় তেল দাও,হাফিজকে পাকিস্তানের বোর্ডের সিইও

Published by: সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক |    Posted: 1 week ago|    Updated: 1 week ago

An Images

সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক :

স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে নিষিদ্ধ শারজিল খানকে আবার ক্রিকেটে ফেরানো পিসিবির উচিত হয়েছে কি না, এ নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন মোহাম্মদ হাফিজ।

নীতিগত দিক থেকে ভাবলে হয়তো মোহাম্মদ হাফিজের প্রশ্ন তোলাটা যৌক্তিকই। কিন্তু পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) যে ব্যাপারে অনুমতি দিয়ে রেখেছে, পিসিবিরই চুক্তিবদ্ধ একজন ক্রিকেটার হয়ে সেটি নিয়ে প্রশ্ন তোলা কতটা যৌক্তিক, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়। সে কারণেই পিসিবির রোষের মুখে হাফিজ।

স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে নিষিদ্ধ শারজিল খানকে আবার যেভাবে ক্রিকেটে ফিরিয়েছে পিসিবি, সেটি পছন্দ হয়নি হাফিজের। তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন পাকিস্তান অলরাউন্ডার। কিন্তু হাফিজের ওভাবে প্রশ্ন তোলা আবার পছন্দ হয়নি পিসিবির। বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ওয়াসিম খান তাই হাফিজকে বলছেন, নিজের চরকায় তেল দাও, মনোযোগ দাও নিজের খেলায়।

২০১৭ সালের পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে শারজিল খানকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে পিসিবি। কিন্তু গত বছরের আগস্টে শারজিল ‘শর্তহীন ক্ষমা প্রার্থনা’ করায় পিসিবি এই ৩০ বছর বয়সী বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের শাস্তি স্থগিত করে। এবারের পিএসএলে করাচি কিংস তাঁকে কিনে নেয়। ব্যাট হাতে অবশ্য খুব একটা ভালো করেননি শারজিল, ১০ ম্যাচে করেছেন ১৯৯ রান। সর্বশেষ তিন ইনিংসের দুটিতে অবশ্য দারুণ ব্যাটিং করেছেন। একটিতে ৭৪, অন্যটিতে ১৪ বলে ৩৭। তাতেই এরই মধ্যে আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পাকিস্তান দলে তাঁর ফেরার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে।

এ নিয়েই আপত্তি হাফিজের। টুইটারে এক ভক্তের প্রশ্নে তাঁর জবাব বুঝিয়ে দিল, শারজিল পাকিস্তান দলে ফিরলে খুশি হবেন না হাফিজ।

শারজিলকে এত দ্রুত পাকিস্তান দলে কেন নেওয়া উচিত হবে না, তা বোঝাতে কদিন আগে পাকিস্তানের বোলিং কোচ ও কিংবদন্তি ফাস্ট বোলার ওয়াকার ইউনুস বলেছিলেন, ‘এক-দুটি ইনিংস দিয়ে শারজিলকে বিবেচনা করা যাবে না। ওর ফিটনেসে অনেক উন্নতি করতে হবে। না হলে অস্ট্রেলিয়ায় ওকে মাঠের কোন জায়গায় লুকাব?’

এ নিয়েই এক ভক্ত টুইটারে হাফিজকে প্রশ্ন করেন, ‘শারজিলের ব্যাপারে ওয়াকারের মন্তব্যে আপনি একমত? নাকি আপনার মনে হয় (শারজিলের মতো) ভালো দক্ষতা আছে কিন্তু ফিটনেস কম এমন খেলোয়াড়কে নেওয়া যায়?’ জবাবে হাফিজ লিখেছেন, ‘পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করার ক্ষেত্রে এরকম ‘দারুণ প্রতিভা’র চেয়ে আমাদের মর্যাদা ও গর্বের সীমাটা আরও উঁচুতে বাঁধা উচিত নয় কি?’’

ইঙ্গিত পরিষ্কার, শারজিল যতই প্রতিভাবান হোন, এমন একজনকে দলে দেখতে চান না হাফিজ। কিন্তু তাঁর এমন মন্তব্য খেপিয়েছে পিসিবির সিইও ওয়াসিমকে। হাফিজকে বলেছেন, ‘নিজের খেলায় মনোযোগ দাও।’

ক্রিকইনফোতে ওয়াসিম বলেছেন, ‘এখনো খেলছেন এমন খেলোয়াড়দের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অন্য খেলোয়াড়দের সমালোচনা করা, বা ক্রিকেট বোর্ডের কোনো কাজ ঠিক কি ভুল, কাজটা করা উচিত হয়েছে কি হয়নি এসব ব্যাপারে মন্তব্য করা উচিত নয়। বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ে, ক্রিকেট খেলাটা নিয়ে তাঁদের মনের সব কথাই বলতে পারেন। কিন্তু খেলোয়াড় বা বোর্ডের ভুল-শুদ্ধের ব্যাপারগুলো নিয়ে কথা বলার কাজটা বোর্ডের হাতেই ছেড়ে দেওয়া উচিত।’

হাফিজের সঙ্গে তিনি নিজেই এ নিয়ে কথা বলবেন বলেও জানিয়েছেন ওয়াসিম।

An Images
An Images
An Images An Images